মহাবিস্ফোরণ তত্ব ll Big Bang Theory Part- 1

-:Origin of Universe light on Big Bang Theory :-

(প্রথম প্রকাশ :- মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া ত্রৈমাসিক পত্রিকা, প্রথম সংখ্যা আগস্ট 15, 2017)

(Part – 1)



 

সূচনা (Introduction):- মহাবিশ্ব, সমগ্র মানবজাতির কাছে এক্ রহস্যময় ঘেরাটোপ l আদিঅন্ত হীন এই মহাবিশ্বকে ঘিরে কল্পনার যেমন শেষ নেই তেমনি শেষ নেই তা নিরসনের প্রচেষ্টার l এক প্রচেষ্টা উস্কে দেয় আরেক সমস্যা l সমস্যা রয়েছে, সমাধানের ইঙ্গিত নেই l প্রশ্ন রয়েছে, উত্তর নেই l কিভাবে সৃষ্টি হল এই মহাবিশ্ব ? উত্তর অধরা l অনেক তত্ব, অনেক কল্পবিজ্ঞান, অনেক গবেষণাসূত্র কিন্ত কোন কিছুই এক সুরে বাঁধা যায় না l মহাজাগতিক এই রহস্যভেদ যেন ছন্দ পতনের বর্ণনা l তাহলেকি আমরা কোন দিনও পৃথিবী তথা মহাজগতের সৃষ্টি রহস্য জানতে পারবনা ? কেন পারবনা ? বিজ্ঞান আছে, রয়েছে চিন্তা, প্রযুক্তি এবং সর্বোপরি বৈজ্ঞানিকদের নিরলস প্রচেষ্টা l এ রহস্য ভেদ না করা পর্যন্ত শান্তি নেই l বিজ্ঞান সমৃদ্ধ হচ্ছে, নূতন ধারণার বিকাশে সে বদ্ধপরিকর l

1927 খগোল বিজ্ঞানে সূচিত হল এক নূতন অধ্যায় l স্থানটা অবশ্যই রোম l রোমের ধর্ম যাজক তথা পদার্থবিজ্ঞানী Georges Henri Lemaitre স্বাধীন ভাবে নির্ণয় করলেন “Friedman Solution” এবং তিঁনি পুনরুক্তি করলেন “The Universe Must Be Expending” l সূচনা হল “Big Bang Theory” র যা বর্তমান সময়কাল পর্যন্ত কর্তৃত্বপূর্ণ এবং সর্বাধিক স্বীকৃত ও সমর্থিত ব্রহ্মাণ্ড সৃষ্টির তত্ব l তবে এই তত্বের জন্মলগ্নে কিছু তথ্যপ্রমাণের ভিত্তিতে একে সর্বপ্রথম সমর্থন করেন 1929 খৃষ্টাব্দে Edwin Hubble . মহাবিশ্ব সৃষ্টির রহস্য উদঘাটনের এই তত্বের সঙ্গে শুধু হাবল নয় জড়িয়ে আছেন আরো অনেক স্বক্ষ্যাতনামা বিজ্ঞানী, যাঁদের মধ্যে অন্যতম আইনস্টাইন, ফ্রিডম্যান ……কিন্তু কীভাবে ? আসুন জেনেনিই “Big Bang Theory” র ইতিহাস l

Big Bang Theory, Brief History :-

1912,আমেরিকা ; আসা জাগালো ভবিষ্যৎ “Big Bang Theory” l আমেরিকান জ্যোতির্বিদ Vesto Slipher একটি Spiral Galaxy Series পর্যবেক্ষণ পরিচালনা কালে তাদের Doppler Redshift পরিমাপ করেন এবং ফল হিসাবে দেখেন যে, প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রেই Galaxy গুলি আমাদের থেকে দূরে সরে যাচ্ছে l অর্থাত্ Slipher তাঁর পর্যবেক্ষণ থেকে মহাবিশ্ব প্রসারণের আভাস উপলব্ধি করতে পারেন l

সময় কেটেযায় তার নির্দিষ্ট নিয়মে l চলতে থাকে বিভিণ্ন ধরনের বৈজ্ঞানিক গবেষণা l অবশেষে আসে সেই মহা সন্ধিক্ষণ যা বিজ্ঞানকে নুতন চিন্তাধারার পথে এগিয়ে যেতে বাধ্য করে l বিজ্ঞানের মুকুটে যুক্ত হয় আরেক স্বর্ণ পালক l সালটা 1905, প্রকাশিত হল স্বনাম ধন্য বিজ্ঞানী Einstein এঁর “The Electrodynamics Of Moving Bodies” যেখানে তিঁনি পরিচয় ঘটান Space Time এর গঠণ বিষয়ক তত্ব ‘Special Relativity’ র সঙ্গে l যার দুটি মুল সূত্র হল (1) The law of physics are the same for all observers in uniform Motion related to one another. এবং (2) The speed of light in a vacuum is the same for all observers regardless for their relative motion or of the motion of light .এই ‘Special Relativity’র ভিত্তিতে তিঁনি 1907-1915 এর মধ্যে উপস্থাপন করেন ‘General Relativity’ যা প্রকাশিত হয় 1916 সালে l আপেক্ষিকতা বাদে আলোচিত যে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বিজ্ঞানী মহলে আলোড়ন সৃষ্টি করে তারমধ্যে অন্যতম হল “The universe is extending, any the far parts of it are moving away from us faster than the speed of light”.আইনস্টাইন তাঁর ‘General Relativity’ সমাধানের জন্য “Field Equation” প্রস্তাব করেন l

1922, রাশিয়ার কসমোলজিস্ট ও গণিতবিদ Alexander Friedman আইনস্টাইন এঁর “General Relativity Field Equation” সমাধান করেন এবং প্রমাণ করেন যে, মহাবিশ্ব প্রসারিত হচ্ছে l Friedman এর এই সমাধান “Friedman Equation” নামে অভিহিত l যার ভিত্তিতে 5 বছর পর Lemaitre স্বাধীন ভাবে নির্ণয় করেন “Friedman Solution” এবং পুনরুক্তি করেন “The Universe Must Be Expending” l

মহাবিশ্বসৃষ্টিররহস্যউদঘাটনেরএইপ্রাকমুহূর্তেআসুনজেনেনিইএরঐতিহাসিকপটভূমিরমহাবিজ্ঞানীদেরসম্পর্কেকিছুতথ্য l

 

Vesto Melvin Slipher :- মহা বিস্ফোরণ তত্ব ও তার ঐতিহাসিক পটভূমির বিজ্ঞানী :-মহা বিস্ফোরণ তত্বের ঐতিহাসিক লগ্নের সূচনা করেন American Astronomer Vesto Melvin Slipher যিনি আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ডিয়ানা প্রদেশের মালবারি (Mulbarri) তে 1875 সালের 11 ই নভেম্বর জন্মগ্রহণ করেন l তিনিই প্রথম Galaxies এর বিকিরণ মাত্রা নিরুপন করেন, যা তাঁকে মহা বিশ্ব সম্প্রসারণ এর অভিজ্ঞতা প্রদান করে l তিঁনি তাঁর কর্মজীবনের অধিকাংশ সময় অতিবাহিত করেন Lowell Observatory তে 1915 সালে তিঁনি এখানে অ্যাসিসটেন্ট ডাইরেক্টর হিসাবে, 1916 – 26 পর্যন্ত অ্যাকটিং ডাইরেক্টর হিসাবে এবং 1926-1952 অর্থাত্ তাঁর অবসর সময় পর্যন্ত ডাইরেক্টর হিসাবে কর্মজীবন অতিবাহিত করেন l 1912 তে তিঁনি প্রথম আবিষ্কার করেন ছায়াপথের আলোকরশ্মির স্থান পরিবর্তন রেখা l 1914 তে আবিষ্কার করেন স্পাইরাল গ্যালাক্সির আবর্তন l তিঁনি sodium layer আবিষ্কার করেন 1929 খৃস্টাব্দে 1930 এ Pluto আবিষ্কারেও তাঁর অবদান গুরুত্ব পূর্ণ l নভেম্বর 8, 1969 এ Slipher লোকান্তরিত হন গ্যালাক্সি থেকে l

Albert Einstein :- সর্ব কালের শ্রেষ্ঠ বিজ্ঞানী তথা German Theoritical Physicist Albert Einstein 1879 সালের 14 ই মার্চ জার্মানির Kingdo Wurttember Empire এর Ulm এ জন্মগ্রহণ করেন l তিঁনি 1900 সালে Swess Fe Polytechnic থেকে B.A ডিগ্রি অর্জন করেন এবং এই বছরেই তিঁনি রচনা করেন বৈজ্ঞানিক ক্রোড়পত্র “Folgerungen aus den capillaritatserscheinungen” (Conclusions thethe capillary phenomena) যা 1905 সালের 30 সা এপ্রিল Annalen der Physik নামক জার্নালে প্রকাশিত হয় l তিঁনি তাঁর Doctoral Advisor Alfred Klein এঁর তত্বাবধানে তাঁর Phd Thisis “Eine new Bestimmung Molekuldim” (A New Determinati Molecular Dimensions) সম্পূর্ণ করেন l

বৈজ্ঞানিক ক্ষেত্রে তাঁর অবদান “Theory Of Relativity” আধুনিক ভৌতবিজ্ঞানের দুটি স্তম্ভের একটি (অন্যটি হল -Quantum Mechanics)l তিঁনি জনসাধারণের কাছে “Mass Energy Equivalence” প্রবক্তা হিসাবে অধিক জনপ্রিয় l তাঁর বিখ্যাত ফর্মুলা E = Mc2 নিঃসন্দেহে বিশ্বের সর্বাধিক জনপ্রিয় সমীকরণ (Equation) l

1921 সালে তিঁনি বিশ্বের সর্বোচ্চ সন্মান নোবেল পুরস্কার গ্রহণ করেন তাঁর সারা জীবনে Theoretics Physics এ অবদানের জন্য এবং বিশেষ ভাবে “Photoelectric Effect” আবিষ্কারের জন্য l 1930 সালে তিঁনি বাঙালীর তথা বিশ্বের চোখের মনি নোবেল বিজেতা কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সাথে সাক্ষাত্কারের প্রসঙ্গে বলেন ‘If I were not a physicist, I would probably be a musician’ যা বাঙালীর হৃদয়কে স্পর্শ করে যায় l 1915 মহা বিশ্বের কাছে আসে সেই চরম সন্ধিক্ষণ, যখন 18 ই এপ্রিল “Space Time” কে চির বিদায় জানায় এই বিশ্ব বন্দিত্ব মহাপ্রাণ l

 



♥ আপনি আগামি SLST Geography পরীক্ষার প্রস্তুতি নিচ্ছেন ? তাহলে আপনি নিঃসন্দেহে যুক্ত হয়ে যেতে পারেন MGI SLST Geography Online Coaching ব্যবস্থার সাথে I

নিয়মিত ভাবে বাড়িতে বসে উচ্চ মানের স্টাডি ম্যাটেরিয়াল সহ মক টেস্ট এবার আপনার হাতের মুঠোয় I বর্তমানে MGI SLST Geography Online Coaching 200 + সদস্য, আপনিও এই সুযোগের সদ্ব্যবহার করতে পারেন I

♦এক নজরে দেখে নিই কি কি রয়েছে সমগ্র কোচিংয়ে♦

===============================

MGI SLST GEOGRAPHY ONLINE COACHING সামগ্রিক পরিকল্পনা

*********************************

মোট টপিক 👉 146

মোট SAQ প্রশ্নোত্তর 146X50 = 7,300 (NO REPEAT)

মোট MOCK TEST – 50 [11 টি বিষয় ভিত্তিক (প্রশ্ন থাকবে 30 টি করে) এবং 39 টি সামগ্রিক (প্রশ্ন থাকবে 55 টি করে); সমস্ত প্রশ্ন MCQ TYPE; মোট প্রশ্নোত্তর 330+2,145 = 2,475]

SAQ ও MCQ সহ মোট প্রশ্নোত্তর 👉 7,300+2,475 = 9,775 (NO REPEAT, ZERO ERROR)

টপিক বিভাগ নিম্নরূপ

  1. Geotectonic :- 8 টি টপিক

  2. Geomorphology :- 14 টি টপিক

  3. Thought :- 8 টি টপিক

  4. Climatology :- 16 টি টপিক

  5. Biogeography :- 14 টি টপিক

  6. Environment Geo. :- 14 টি টপিক

  7. Economic Geo :- 20 টি টপিক

  8. Human Geography :- 14 টি টপিক

  9. Regional Geo. of India :- 20 টি টপিক

  10. Oceanography :- 08 টি টপিক

  11. Cartography :- 10 টি টপিক

বর্তমান সদস্য সংখ্যা 200 + ; আপনি এখনো যুক্ত হয়ে না থাকলে যুক্ত হতে পারেন নিচের লিঙ্কে ক্লিক করে I

বিশদে জানতে ও মেম্বারশীপ নিতে ক্লিক করুন নিচের লিঙ্কে 👇👇

Click For Membership



 

Alexander Fridman :- জুন 16, 1888 Russian Empire এর Saint Petersburg জন্মগ্রহণ করেন পদার্থবিদ তথা গণিতজ্ঞ আলেকজান্ডার ফ্রিডম্যান l জনসাধারণের কাছে তিঁনি মহাবিশ্ব সম্প্রসারণের পথপ্রদর্শক এবং ফ্রিডম্যান সমীকরণের উদ্গাতা হিসাবে জনপ্রিয় l 1910 খৃষ্টাব্দে Saint Petersburg State University থেকে সাম্মানিক ডিগ্রী লাভ করেন এবং Saint PetersburgMinning Institute এ যোগদান করেন l প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় তিঁনি সংযুক্ত রাশিয়ার সপক্ষে যুদ্ধ করেন l 1922 তিঁনি চলমান পদার্থের ধারণা থেকে সম্প্রসারণমান ব্রহ্মান্ডের ধারণা দেন l 1925 সালের জুন মাসে ফ্রিডম্যান Leningrad Geophysical Observation Center এর ডাইরেক্টর হিসাবে যোগদান করেন l 1924 সালে তিঁনি “Uber die mogolichkkeit einer welt mit konstanter negativer krummung des reumes”(“On the possibility of a world with constant negative curvature of space.”) গবেষণাপত্র প্রকাশ করেন German Physics Jurnal Zeitschrift Phyaik এ l এই সময়কালে মহাবিশ্ব সৃষ্টি রহস্য নিরসনের জন্য দুটি তত্ব যথা Big Bang এবং Steady State Theory এর সপক্ষে তিঁনি কার্যাবলী চালিয়ে যান l 1925 সালের 12 ই ডিসেম্বর USSR এর Leningrad এ পদার্থবিদ্যা ও গণিতকে চির বিদায় জানান আলেকজান্ডার ফ্রিডম্যান l

Edwin Powell Hubble :- Astronomy মহাকাশের এক উজ্জ্বলতম নক্ষত্র l তিঁনি 20 নভেম্বর 1889 সালে আমেরিকায় জন্মগ্রহণ করেন l তিঁনি জনসাধারণের কাছে “Hubble-Sequence” জন্য অধিক জনপ্রিয়তা অর্জন করেন l তিঁনি প্রমাণ করেন যে, একটি ছায়াপথের পশ্চাদমুখী গতিবেগ তত বৃদ্ধি পায় যত সে পৃথিবী থেকে দূরে সরতে থাকে (Recessional velocity of a galaxy increases with its distance from earth), যা হাবল এঁর সূত্র নামে পরিচিত l তিঁনি Hubble Space Telescope তৈরি করে স্মরণীয় হয়ে রয়েছেন খগোল বিজ্ঞানে l 1910 সালে তিঁনি Science এ Degree অর্জন করেন l 1920 সালে হাবল গ্যালাক্সি গুলির দূরত্ব ও রেডশিফট এর সম্পর্ক নিরূপনের পরীক্ষা করেন এবং তিঁনি দেখেন যে, “The roughly linner relation between the distance of the galaxy and the redshift ” তিঁনি 46 টি গ্যালাক্সি পরিমাপ করেন এবং ‘Hubble Constant’ নির্ণয় করেন যার মান 500 km /s /Mpc . 1924 সালে তিঁনি Leveland Prize গ্রহণ করেন l 1938 সালে Bruce Medal এবং 1940 সালে Royal Astronomical Society থেকে প্রাপ্ত Gold Medal তাঁর বৈজ্ঞ্যানিক ক্ষেত্রে আত্মনিবেদনের অন্যতম স্বীকৃতি l এই মহান খগোলবিদ 28 শে সেপ্টেম্বর 1953 তে চিরতরে তাঁর গ্যালাক্সি কে বিদায় জানান l

Georges Henri Lemaitre :- জুলাই 1984, বেলজিয়ামের চারলেরাই (Charlerai) এ জন্মগ্রহণ করেন বিগ ব্যাং তত্বের উদ্গাতা জর্জেস হেনরী লেমেইত্রে l তিঁনি তাঁর প্রাথমিক শিক্ষা শুরু করেন Jesuit School এ এবং 17 বছর বয়সে তিঁনি Catholic University of Leuven এর Civil Engineering School এ শিক্ষা গ্রহণ আরম্ভ করেন l 1914 খৃষ্টাব্দে ইউরোপের ভাঙ্গনের সময় তিঁনি বেলজিয়াম সেনাবহিনীতে যোগদান করেন l 1920 তে Universite Catholiquede Louvain (UCL) থেকে ডক্টরেট উপাধী লাভ করেন l এই সময়কালে তাঁর বিশ্ব প্রকৃতি সমন্ধে কৌতুহল সৃষ্টি হয় l 1923-24 লেমেইত্রে University of Cambridge Solar physics laboratory এবং Massachusetts Institute of Technology (MIT) এ সম্প্রসারমান বিশ্ব নিয়ে কর্মরত ছিলেন এবং এখনেই তাঁর পরিচয় ঘটে হাবল এঁর সঙ্গে, তিনিও একই কাজে লিপ্ত ছিলেন l 1927 সালে তিঁনি Universite Catholiquede Louvain (UCL) এ পূর্ণাঙ্গ সময়ের কর্মী হিসাবে যুক্ত হন এবং “Un Universe homogene de masse constante et de rayon croissant rendent compte de la vitesse radial des nebuleuses extragalactiques (A homogenous universe of constant mass and growing radius accouting for the radial valocity)নামক বৈজ্ঞ্যানিক পত্রিকা প্রকাশ করেন l 17 ই মার্চ 1934 বেলজিয়ামের সর্বোচ্চ বৈজ্ঞানিক পুরষ্কার Francui Prize তিঁনি গ্রহণ করেন l 1953 সালে Royal Astronomical Society লেমেইত্রে কে Eddington Medal দিয়ে সন্মানিত করেন l 1966, যখন বিগ ব্যাং তত্ব পরিপূর্ণতার পথে ক্রম গতিশীল সমস্ত মহাজাগতিক শক্তিকে উপেক্ষা করে লেমেইত্রে চলে গেলেন ব্রহ্মাণ্ডের অন্তরালে l

নামকরণ :- লেমেইত্রে (Lemaitre) র উদ্ভূত তত্ব (Big Bang Theory)বিজ্ঞান জগতে মহা বিশ্ব বা ব্রহ্মাণ্ড সৃষ্টির রহস্য উদ্ঘাটনে সর্বাধুনিক ও সর্বাধিক সমর্থিত তত্ব হলেও তিঁনি কিন্তু এই তত্বের নামকরণ করতে পারেন নি l নামাঙ্কিত করেছিলেন বিজ্ঞানী Edwin Hubble যিনি আবার প্রথম সমর্থনও করেন এই তত্বকে l 1949 এর 28 শে মার্চ BBC (British Broadcasting Corporation) আয়োজিত “Third Program”নামক অনুষ্ঠানে তিনিই সর্ব প্রথম শ্লেষাত্মক ভাষায় “Big Bang” শব্দ দ্বয় ব্যবহার করেন l যার বাংলা শব্দার্থ করলে দাঁড়ায় ‘Big’ = ‘বড়ো বা বৃহৎ এবং ‘Bang’ = ‘প্রচন্ড জোরে বিস্ফোরণ’ যা ‘মহা বিস্ফোরণ’ নামে অধিক জনপ্রিয় l তিঁনি BBC র এই অনুষ্টানে ব্রহ্মাণ্ড সৃষ্টি ও লেমেইত্রের তত্ব সম্পর্কে বলেন ” One (Idea) was that the universe started its life a finite time ago in a single huge explosion, and that the present expansion is a relic of the violence of this explosion .This Big Bang idea seemed to me to be un satisfactory even before detailed examination showed that it leads to serious difficulties.”

পরবর্তী কালে 1950 এ “বস্তুর ধর্ম” এর ওপর পাঁচটি বক্তৃতা দেওয়ার সময় প্রসঙ্গক্রমে তিঁনি পুনঃ এই শব্দদুটি ব্যবহার করেন l বক্তৃতাটির এক সপ্তাহ পর “The Listener” নামক পত্রিকায় প্রথম ছাপা অক্ষরে “Big Bang” প্রকাশিত হয় l

 



 

MGI এর প্রচেষ্টায় ভূগোল বিষয়ে এই প্রথম 2500 + সালের সংকলন যুক্ত ইবুক “ভৌগোলিক সালানুক্রম” আপনি সংগ্রহ করে রাখতেই পারেন I

“ভৌগোলিক_সালানুক্রম”
*********************************

“ভৌগোলিক_সালানুক্রম” বাংলা ভাষায় এই প্রথম সাল অনুযায়ী ভৌগোলিক ঘটনাবলীর অনবদ্য সঙ্কলন I ভূগোলের জন্মলগ্ন থেকে সমসাময়িক কাল পর্যন্ত ঘটে যাওয়া বিভিন্ন উল্লেখযোগ্য ঘটনাক্রম, বিভিন্ন ভৌগোলিকগানের জন্ম-মৃত্যু, তাদের আবিষ্কার, তত্বের প্রবর্তন, বিভিন্ন বই এর প্রকাশকাল সহ নামকরণ, বিভিন্ন শব্দের ব্যবহার ও প্রতিষ্ঠানের গঠণ ইত্যাদি একই স্থানে উপলব্ধ করাই এই ইবুকের মুল লক্ষ্য। ইবুকটি সংগ্রহ করুন এবং ভৌগোলিক জ্ঞানের পরিধির ব্যপ্তি ঘটিয়ে আনন্দ উপোভোগ করুন I

==========================

ইবুক টি সংগ্রহ করতে এখানে ক্লিক করুন




 

প্রতিপাদ্য বিষয় :- মহা বিস্ফোরণ তত্বের মুল প্রতিপাদ্য বিষয় হল মহাবিশ্ব কোন এক সময় কল্পনাতীত ঘনত্বে বিন্দুবৎ অবস্থায় অবস্থান করত এবং কোন এক পরম মুহূর্তে তাতে বিস্ফোরণ ঘটে l বিস্ফোরণের ফলে এই মহাজাগতিক বস্তু ভেঙ্গে গিয়ে দ্রুত গতিসম্পন্ন কণার জন্ম হয় l গতিশীল কোনগুলো বিস্তৃত হতে হতে কালানুক্রমে মহাবিশ্বের সৃষ্টি করে l

ব্যাখ্যা (Explanation) :- “Big Bang Theory” অনুসারে 13.8 বিলিয়ন বছরের আগে বর্তমান ব্রহ্মাণ্ড অকল্পনীয় ঘনত্বে সংকুচিত অবস্থায় একটি ক্ষুদ্র বলের আকারে অবস্থান করত যাকে পদার্থ বিজ্ঞানের ভাষায় বলাহয় Singularity l 13.8 বিলিয়ন বছর পূর্বে এই মহাজাগতিক আদি অকল্পনীয় সংকুচিত বস্তুটিতে কল্পনাতীত বিস্ফোরণ ঘটে, ফলে ঐ গোলকীয় বস্তু টুকরো টুকরো হয়ে অসংখ্য কণাতে ভেঙ্গে পড়ে l আবার ঐ আদি বিস্ফোরণের ফলে উদ্ভূত সমানুপাতিক কেন্দ্রাতিগ (Centrifugal) বলের প্রভাবে কণাগুলো কেন্দ্র বিমুখি দিকে গতি লাভ করে l এই গতি আলোর গতি অপেক্ষা অধিক বলে বিজ্ঞানীরা মনেকরেন l বিগ ব্যাং অনুসারে মহা বিস্ফোরণের 0 থেকে 10– – 43 সেকেন্ড সময়কাল “Plank Period” নামে অভিহিত l

বিস্ফোরণের 10– – 40 থেকে 10– – 11 সেকেন্ড পর মহাবিশ্ব সম্প্রসারণের বিষয়টি বিবেচিত হয় অর্থাত্ Plank Period এ উত্পন্ন মহাজাগতিক কণা গুলি তাদের ঘনত্ব লাঘব করতে থাকে l 10– – 43 থেকে 10– – 36 সেকেন্ডে মহাবিশ্ব উষ্ণতা পরিবর্তন অবস্থার মধ্যে চলতে থাকে এবং মুখ্য শক্তির প্রভাবে Universe একে অপরের থেকে আলাদা হতে থাকে l ঐ সময়েই আদর্শ উষ্ণতায় ( 10– 28 K )Electromagnetic force এবং Neuclear force পৃথক ভাবে Distance Force তৈরিতে সক্ষম হয় l প্লাংক টাইম এর শেষ মুহূর্তে 10– – 32 সেকেন্ডে স্ফীতি আরম্ভ হয় l মহা বিস্ফোরণের 10– – 11 সেকেন্ড পরে উদ্ভূত কণাশক্তি গুরুত্বপূর্ণ ভাবে কমে যায় এবং 10– – 6 সেকেন্ডে Quark ও Glaund যুগ্মভাবে Baryons, মূলতঃ Protons ও Neutrons গঠন করতে সক্ষম হয় হিলিয়াম ও হাইড্রোজেন এর উত্পত্তি হতে থাকে l

মহা বিস্ফোরণ তত্ব অনুসারে প্রথম তারা তৈরি হয় বিস্ফোরণের 50-100 মিলিয়ন বছর পর এবং প্রথম গ্যালাক্সি তৈরি হয় 150-250 মিলিয়ন বছরের মধ্যে l এই প্রক্রিয়া কয়েকশো মিলিয়ন বছর চলার পর মহাকর্ষ বলের প্রভাবে পদার্থ গুলি সংবদ্ধ হতে শুরু করে এবং Milky way – Size galaxy তৈরি হয় l সবশেষে তৈরি হয় শিলা যুক্ত গ্রহ, যা প্রাথমিক লগ্নে উদ্ভূত তারকা গুলির কয়েক গুচ্ছ প্রজন্মের পর অর্থাত্ তারকা গুলি সৃষ্টি হয়, একটি নির্দিষ্ট সময়কাল জীবিত থাকে তাদের নিজস্ব শক্তির সাহায্যে জ্বজ্ল্য মান অবস্থায় এবং অবশেষে মৃত অবস্থায় সুপারনোভা বিস্ফোরণের পর l এভাবেই বিলিয়ন বছর ধরে ক্রমান্বয়ে বিবর্তিত হতে হতে বর্তমানের সুসজ্জিত মনোরম এবং বিস্ময়কর বিশ্ব ব্রহ্মাণ্ড গঠিত হয়েছে বলে মহা বিস্ফোরণ তত্ব উপস্থাপন করে l

লেখকঃ গোপাল মণ্ডল (সহকারী :- সম্পাদক মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া)

© মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া 

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!