Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

Personality॥ব্যক্তিত্ব

পিডিএফ ডাউনলোডের জন্য এখানে ট্যাগ করুন 

⇓⇓

শিশু বিজ্ঞান – এমজিআই অনলাইন প্রশিক্ষণ দ্বারা ব্যক্তিগততা

কন্যা। ব্যক্তিত্ব

**********************************



1. পরিচয় (ব্যক্তিত্ব) কি পরীক্ষা?
উঃ স্বাস্থ্যকেন্দ্রিক কিছু স্বাতন্ত্র্য বৈশিষ্ট্য সমষ্টি জীবনযাত্রার বিবরণ অন্যভাবে বর্ণিত যে সময়গুলি আভন্তরীণ জৈব-মানসম্পন্ন বৈশিষ্ট্যগুলির দ্বারা এক ব্যক্তির দ্বারা পরিদর্শন করা যায় না ্থ সাহায্য সাহায্য সাহায্য সাহায্য সাহায্য অপ অপ একে একে অপ অপ অপ অপ স্ব স্ব সেই স্ব স্ব স্ব বৈশিষ্ট বৈশিষ্ট বৈশিষ্ট বৈশিষ্ট বৈশিষ্ট বৈশিষ্ট বৈশিষ্ট সেই করা সেই বৈশিষ্ট করা সেই সেই গর্ডন উইলার্ড অলপোর্ট (১৯61১), ছাত্রলীগের সংস্থার পরামর্শ তিনি বলেছেন – “ব্যক্তিত্ব হ’ল মনস্তাত্ত্বিক সিস্টেমগুলির মধ্যে ব্যক্তির মধ্যে একটি গতিশীল সংগঠন যা ব্যক্তির চিন্তাভাবনা, অনুভূতি এবং আচরণের বৈশিষ্ট্যপূর্ণ নিদর্শন তৈরি করে।”
ক্রেচ ও ক্রাচফিল্ড (১৯৯ 69) সম্পর্কে তাঁর মতামত সম্পর্কে বলেছেন – “ব্যক্তিত্ব হ’ল একজন ব্যক্তির সমস্ত বৈশিষ্ট্যকে একটি অনন্য সংস্থায় সংহত করে যা নির্ধারণ করে এবং তার ক্রমাগত পরিবর্তিত পরিবেশের সাথে অভিযোজন হিসাবে তার প্রচেষ্টায় পরিবর্তন হয়।”
এনসাইক্লোপিডিয়া অব সাইকোলজি (সম্পাদিত লিখেছেন আইজেনেক – 1975) “” জৈবিক ড্রাইভ এবং সামাজিক এবং শারীরিক পরিবেশের মধ্যে মিথস্ক্রিয়া থেকে উদ্ভূত ব্যক্তিত্বের অনুপ্রেরণামূলক মনোভাবগুলির তুলনামূলকভাবে স্থিতিশীল সংগঠন “ব্যক্তিত্ব।

2. ব্যক্তিত্বের বৈশিষ্ট্যগুলি কিকি ?
উঃ ব্যক্তিত্বের কয়েকটি বৈশিষ্ট্য হলঃ i) ব্যক্তিত্ব হল ব্যক্তির কিছু স্বতন্ত্র মনোবৈজ্ঞানিক বৈশিষ্ট্যর সমন্বিত অবস্থা । ii) ব্যক্তিত্ব সহজাত ও অর্জিত উভয়ই হতে পারে । iii) ব্যক্তিত্ব ব্যক্তির আচরণের নির্ধারক । iv) ব্যক্তিত্ব গতিশীল ও সতত পরিবর্তনশীল । v) ব্যক্তিত্ব পরিমাপযোগ্য ও বর্ণনা যোগ্য ইত্যাদি ।

3. ব্যক্তিত্বের উপর প্রভাব বিস্তারকারী উপাদানগুলি কিকি ?
উঃ ব্যক্তিত্বের উপর প্রভাব বিস্তারকারী উপাদানগুলিকে তিনটি প্রধান গ্রুপে বিভক্ত করা যায়, যথাঃ i) জৈবিক উপাদান (Biological Factors, ii) মানসিক উপাদান (Pscyhological Factors) এবং iii) পরিবেশগত উপাদান (Environmental Factors) ইত্যাদি ।

4. ব্যক্তিত্বের উপর প্রভাব বিস্তারকারী জৈবিক উপাদানগুলি কিকি ?
উঃ ব্যক্তিত্বের উপর প্রভাব বিস্তারকারী জৈবিক উপাদানগুলি হলঃ i) শারীরিক গঠন (Body build), ii) শারীরিক আকর্ষণীয়তা (Physical attractiveness), iii) শারীরিক স্থিতি (Homeostasis), (iv) শারীরিক ত্রুটি (Physical defects) (v) শারীরিক অবস্থা (Health conditions) ইত্যাদি ।

5. ব্যক্তিত্বের উপর প্রভাব বিস্তারকারী মানসিক উপাদানগুলি কিকি ?
উঃ ব্যক্তিত্বের উপর প্রভাব বিস্তারকারী মানসিক উপাদানগুলি হলঃ i) বুদ্ধিবৃত্তিক নির্ধারক (Intellectual determinants), ii) প্রক্ষোভিক নির্ধারক (Emotional determinants), iii) আত্ম প্রকাশ (Self disclosure), iv) আকাঙ্ক্ষা এবং পারদর্শিতা (Aspiration and achievements), v) অত্যধিক ভালবাসা এবং স্নেহ (Excessive Love and Affection), vi) লক্ষ্য নির্দিষ্টকরণ (Goal Setting) ইত্যাদি ।

6. ব্যক্তিত্বের উপর প্রভাব বিস্তারকারী পরিবেশগত উপাদানগুলি কিকি ?
উঃ ব্যক্তিত্বের উপর প্রভাব বিস্তারকারী পরিবেশগত উপাদানগুলি হলঃ i) সামাজিক স্বীকৃতি (Social Acceptance), ii) সামাজিক বঞ্চনা (Social Deprivation), iii) শিক্ষাগত কারণ (Educational Factors), iv) পারিবারিক নির্ধারক (Family Determinants), v) পারিবারিক প্রক্ষোভিক অবস্থা ও ক্রমিক অবস্থান (Emotional Climate of Home and Ordinal Position), vi) পরিবারের আকার (Size of the Family) ইত্যাদি ।

7. ব্যক্তিত্ব ব্যখ্যার কয়টি দৃষ্টিভঙ্গি রয়েছে ?
উঃ ব্যক্তিত্ব সমন্ধে আলোচনাকারী প্রথম মনোবিদ তথা আমেরিকান মনোবিদ Gordon Willard Allport ব্যক্তিত্ব ব্যখ্যার প্রধান চারটি দৃষ্টিভঙ্গির উল্লেখ করেছেন, এগুলি হলঃ i) ঐশ্বরিক দৃষ্টিভঙ্গি (Theological Approach), ii) দার্শনিক দৃষ্টিভঙ্গি Philosophical Approach), iii) সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গি (Sociological Approach) এবং iv) মনস্তাত্ত্বিক দৃষ্টিভঙ্গি (Psychological Approach) ।

8. ব্যক্তিত্বের বিকাশ বলতে কি বোঝায় ?
উঃ চিন্তা, অনুভূতি এবং আচরণের আপেক্ষিক উন্নতিগত যে স্থায়ী প্যাটার্ন এর জন্য এক ব্যাক্তি অপর ব্যক্তির থেকে পৃথক সত্বায় উন্নীত হয় সেই পর্যায়গত অবস্থাকে ব্যক্তিত্বের বিকাশ বলা হয় । অন্যভাবে বলা যায় স্বভাব, চরিত্র এবং পরিবেশের চলমান মিথস্ক্রিয়ায় ব্যক্তির আচরণ এবং দৃষ্টিভঙ্গির সংগঠিত প্যাটার্নের মাধ্যমে একজন ব্যক্তিকে অন্যজন থেকে স্বতন্ত্র করে তোলার পর্যায়গত অবস্থাকে ব্যক্তিত্বের বিকাশ বলা হয় ।

9. ব্যক্তিত্ব বিকাশের পর্যায়গুলি কিকি ?
উঃ ব্যক্তিত্ব বিকাশের মূলতঃ দুটি পর্যায় রয়েছে, যথাঃ i) বিভেদীকরণ (Differentiation) :- এর মাধ্যমে একটি বিষয় থেকে অন্য বিষয়ের পার্থক্য বুঝে তাদের মধ্যে সামঞ্জস্যপূর্ণ অবস্থার সম্মিলন ঘটিয়ে ব্যক্তিত্বের উন্নয়ন ঘটায় । এবং ii) সমন্বয়করণ (Integration) :- এর মাধ্যমে বিভিন্ন কার্যাবলী বা ঘটনা, অভিজ্ঞতা ইত্যাদির সমন্বয়ের মাধ্যমে আচরণের পরিবর্তন ঘটিয়ে ব্যক্তিত্ব গঠন করা যায় ।
এ দুটি ছাড়াও পরিণমন এবং শিখন ব্যক্তিত্ব বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে ।

10. ব্যক্তিত্বের প্রধান তত্বগুলি কিকি ?
উঃ ব্যক্তিত্বের বিভিন্ন দিক ব্যাখ্যা করতে বিভিন্ন ধরণের তত্ত্বের উত্থান হয়েছে । এদের মধ্যে কিছু তত্ত্ব ব্যক্তিত্বের বিকাশ সমন্ধে ব্যাখ্যা করে এবং কিছু তত্ব ব্যক্তিত্বের স্বতন্ত্র পার্থক্যের বিষয়গুলো আলোচনা করে । বিভিন্ন মনোবিজ্ঞানী প্রস্তাবিত ব্যক্তিত্বের এরুপ কয়েকটি প্রধান তত্ত্ব হলঃ i) Trait Theories :- a) Three Trait Theory, b) Three Dimensions Model/Theory of Personality, c) The Sixteen Personality Factor Questionnaire (16PF), d) Myers-Briggs Types Indicator, d) “Big Five” Personality Dimensions; ii) Psychoanalytic Theories: a) Psychodynamic Theories of Personality, b) Stage Theory of Psychosocial Development, c) Horney’s Theory of Neurotic Needs; iii) Behavioral Theories:- a) Classical Conditioning, b) Operant Conditioning; iv) Humanist Theories: a) Hierarchy of Needs Theory এবং b) Person-Centered Theory ইত্যাদি ।

11. ব্যক্তিত্ব সংক্রান্ত Trait Theory তে Trait বিষয়টি কি ?
উঃ Trait এর অর্থ হল বিশেষ লক্ষণ বা প্রলক্ষণ অর্থাৎ বৈশিষ্ট্য । একটি স্থিতিশীল বৈশিষ্ট্য হিসাবে সংজ্ঞায়িত করা যেতে পারে যা কোনও ব্যক্তিকে নির্দিষ্ট পরিস্থিতিতে কোনও পরিস্থিতিতে প্রতিক্রিয়া দেখায় । Cambridge Dictionary অনুযায়ী ‘Trait’ বলতে বোঝায় “A particular characteristic that can produce a particular type of behaviour .” সুতরাং ব্যক্তিত্ব সংক্রান্ত Trait Theory বলতে বিশেষ বিশেষ বৈশিষ্ট্যের ভিত্তিতে ব্যক্তিত্ব উপস্থাপনের তত্ব কে বোঝায় ।

12. ব্যক্তিত্বের প্রলক্ষণ তত্ব (Trait Theory) সমন্ধে প্রথম কে আলোকপাত করেন ?
উঃ 1936 সালে Gordon Willard Allport ইংরাজি শব্দকোষ এর শব্দের বৈশিষ্ট্যের ভিত্তিতে মানুষের বৈশিষ্ট্য সমন্ধে ধারণা গঠন করেন এবং ব্যক্তিত্বের প্রলক্ষণ তত্ব অবতারণা করেন । তার এই তত্ব Three Trait Theory নামে পরিচিত ।

13. আলপোর্ট তার তত্বে ব্যক্তিত্বের যে তিনটি বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করেছেন সেগুলি কিকি ?
উঃ আলপোর্ট তত্বের নির্দিষ্ট ব্যক্তিত্বের বৈশিষ্ট্য তিনটি হলঃ i) প্রধান বৈশিষ্ট্য (Cardinal Traits), ii) কেন্দ্রীয় বৈশিষ্ট্য (Central Traits) এবং iii) গৌণ বৈশিষ্ট্য (Secondary Traits) ।

14. আলপোর্ট তার তত্বে প্রধান বৈশিষ্ট্য (Cardinal Traits) বলতে কি বুঝিয়েছেন ?
উঃ ব্যক্তির প্রায় সমস্ত আচরণের মধ্যে যে বৈশিষ্ট্যগুলি পরিলক্ষিত হয় তাদের প্রধান বৈশিষ্ট্য হিসাবে বিবেচনা করা হয় । আলপোর্ট তত্ব অনুযায়ী এগুলি এমন বৈশিষ্ট্য যা কোনও ব্যক্তির পুরো জীবনে আধিপত্য বিস্তার করে, এবং ব্যক্তিকে বিশেষ স্বাতন্ত্র্যতা প্রদান করে । এই ধরনের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য সকলের মধ্যে থাকে না, কিন্তু যার মধ্যে থাকে তার মধ্যে বৈশিষ্ট্যগুলি তীব্রভাবে পরিলক্ষিত হয় । এই জাতীয় ব্যক্তিত্বযুক্ত ব্যক্তিরা এই বৈশিষ্ট্যের জন্য এত সুপরিচিত হয়ে উঠতে পারেন যে তাদের নামগুলি প্রায়শই এই গুণাবলীর সমার্থক হয়ে থাকে। যেমনঃ বিশ্বকবি বলতে আমরা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কেই চিনি । নেতাজী বলতে একটি নামই উচ্চারিত হয় – সুভাষচন্দ্র বসু ।

15. আলপোর্ট তার তত্বে কেন্দ্রীয় বৈশিষ্ট্য (Central Traits) বলতে কি বুঝিয়েছেন ?
উঃ আলপোর্ট তত্ব অনুযায়ী কেন্দ্রীয় বৈশিষ্ট্যগুলি হ’ল মানুষের সাধারণ বৈশিষ্ট্য যা ব্যক্তিত্বের মূল ভিত্তি গঠন করে। এই কেন্দ্রীয় বৈশিষ্ট্যগুলি, কার্ডিনাল বৈশিষ্ট্যের মতো প্রভাবশালী হয় না বরং অন্য প্রধান ব্যক্তির আচরণ বা ব্যক্তিত্ব বর্ণনা দেওয়ার জন্য যে বৈশিষ্ট্যগুলি ব্যবহার করা হয় সেগুলিই প্রধান বৈশিষ্ট্য । কোন কেন্দ্রীয় বৈশিষ্ট্য ব্যক্তির আচরণকে তীব্রভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারলে তা প্রধান বৈশিষ্ট্যে রূপান্তরিত হয় । “বুদ্ধিমান,” “সৎ,” “লাজুক,” এবং “উদ্বিগ্ন” এর মতো পদগুলি কেন্দ্রীয় বৈশিষ্ট্য হিসাবে বিবেচিত হয় ।

16. আলপোর্ট তার তত্বে গৌণ বৈশিষ্ট্য (Secondary Traits) বলতে কি বুঝিয়েছেন ?
উঃ আলপোর্ট তত্ব অনুযায়ী গৌণ বৈশিষ্ট্যগুলি এমন বৈশিষ্ট্য যা কখনও কখনও মনোভাব বা পছন্দগুলির সাথে সম্পর্কিত হয়। এগুলি প্রায়শই কেবল নির্দিষ্ট পরিস্থিতিতে বা নির্দিষ্ট পরিস্থিতিতে উপস্থিত হয় । এগুলির ব্যাপ্তি কেন্দ্রীয় বৈশিষ্ট্য অপেক্ষা কম, স্বল্প স্থায়ী এবং ব্যবহারিক ক্ষেত্রও সামান্য । যেমনঃ কোনও বিতর্কে কথা বলার সময় মানুষের হটাৎ উগ্রতা প্রকাশ বা লাইনে অপেক্ষা করার সময় অধৈর্য হয়ে ওঠা এরুপ বৈশিষ্ট্যের অন্তর্গত ।

17. ব্যক্তিত্ব সংক্রান্ত Trait Theory এর মূল বক্তব্য কি ?
উঃ ব্যক্তিত্ব সংক্রান্ত Trait Theory অনুযায়ী ব্যক্তিভেদে বৈশিষ্ট্যগুলির তীব্রতা ও বিস্তারের পার্থক্য লক্ষ্যণীয় । কোন দুটি ব্যক্তির মধ্যে আচরণগত সদৃশ্য কখনোই একশো ভাগ একই হয় না বরং প্রতিটি ব্যক্তি উক্ত তিনটি বৈশিষ্ট্যের ভিত্তিতে পরিবেশের সঙ্গে নিজস্ব ভঙ্গিতে নিজেকে অভিযোজিত করে থাকে । বলা যায় প্রতিটি ব্যক্তিই তাদের বৈশিষ্ট্যের মাধ্যমে অভিযোজনে অনন্যতা প্রকাশ করে ।

18. ব্যক্তিত্বের ত্রিমাত্রিক তত্ব (Three Dimensions Model/Theory of Personality) এর প্রবক্তা কে ?
উঃ জার্মান-ব্রিটিশ মনোবিদ Hans Jurgen Eysenck 1947 সালে প্রকাশিত তার “Dimensions of Personality” নামক গ্রন্থে ব্যক্তিত্বের ত্রিমাত্রিক তত্ব টি উপস্থাপন করেন । তার এই তত্ত্বটি মানুষের জৈবিক সত্বা বা মেজাজের উপর ভিত্তি করে গড়ে ওঠে । পরবর্তী সময়ে 1952, 1967, 1982 তে তিনবার তিনি তার তত্ব সংশোধন করেন ।

19. ব্যক্তিত্বের ত্রিমাত্রিক তত্বের মূল বক্তব্য কি ?
উঃ আইজেঙ্ক বিশ্বাস করতেন যে মূলত জেনেটিক প্রভাব দ্বারা ব্যক্তিত্ব নিয়ন্ত্রিত হয় । তার তত্ত্ব অনুযায়ী, ব্যক্তিত্বের একটি জৈবিক ভিত্তি রয়েছে যা জিনগত ঐতিহ্য দ্বারা নিয়ন্ত্রিত । এবং এই জৈবিক প্রভাবের ভিত্তিতেই ব্যক্তিত্বের পার্থক্য পরিলক্ষিত হয় । তিনি তার তত্বে ব্যক্তিত্বের স্বতন্ত্র গঠনের জন্য কয়েকটি বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করেছেন । তিনি বিশ্বাস করেছিলেন যে স্বতন্ত্র শারীরবৃত্তীয় স্তরগুলি ব্যক্তিত্বের বৈশিষ্ট্যের ভিত্তি তৈরি করতে পারে, এবং এগুলি বৈষম্যমূলক জৈবিক প্রতিক্রিয়ার দ্বারা চিহ্নিত করা যায় ।

20. ব্যক্তিত্বের ত্রিমাত্রিক তত্বে উল্লিখিত মাত্রাগুলি কিকি ?
উঃ ব্যক্তিত্বের ত্রিমাত্রিক তত্বে ব্যক্তিত্বের স্বতন্ত্র গঠনের জন্য আইজেঙ্ক যে তিনটি মাত্রা বা বৈশিষ্ট্য (Super Factors) উল্লেখ করেছেন সেগুলি হলঃ i) Psychoticism, ii) Extraversion এবং Neuroticism যা সংক্ষেপে PEN নামে পরিচিত । তিনি এই মাত্রাগুলির বিপরীত মাত্রারও উল্লেখ করেন এবং পরস্পর বিপরীতধর্মী বৈশিষ্ট্যের মাধ্যমে তা ব্যখ্যা করেন, এগুলি হলঃ i) Extraversion vs. Introversion, ii) Neuroticism vs. Emotional Stability এবং iii) Psychoticism vs. Normality । আইজেঙ্ক যে তিনটি মাত্রা উল্লেখ করেছেন তার মধ্যে প্রথম দুটি মাত্রার ভিত্তিতে 1947 সালে তার তত্ব উপস্থাপন করেন এবং পরবর্তী কালে 1966 সালে তত্ব সংশোধন করে তৃতীয় মাত্রা যুক্ত করেন ।

21. আইজেঙ্ক Extraversion vs. Introversion মাত্রা দ্বারা কিভাবে ব্যক্তিত্বকে বুঝিয়েছেন ?
উঃ আইজেঙ্ক তত্ব অনুযায়ী ব্যক্তিত্বর অন্তর্মুখীতা ও বহির্মুখীতা ব্যক্তিত্বকে প্রভাবিত করে । তার তত্ব অনুযায়ী, ব্যক্তির অন্তর্মুখীতা ব্যক্তিকে শান্ত এবং সংরক্ষিত হতে সাহায্য করে । তারা সর্বদা অত্যধিক উৎসাহ, সংবেদন এবং উদ্দীপনা এড়িয়ে চলে । এরুপ ব্যক্তি তাদের আবেগ নিয়ন্ত্রণ করে ক্রিয়া পরিকল্পনা করে থাকেন । এগুলি গুরুতর, নির্ভরযোগ্য এবং হতাশাবাদী হতে থাকে। এরুপ ব্যক্তি গুরুগম্ভীর, নির্ভরযোগ্য ও হতাশাপূর্ণ হয়ে থাকে । অন্যদিকে বহির্মুখী ব্যক্তি সামাজিক প্রবণতা যুক্ত, উত্তেজক ও পরিবর্তন অভিলষি হয়ে থাকে । এর সর্বদা উদ্বেগহীন, আশাবাদী এবং প্ররোচিত হয়ে থাকে । এরা ঝুঁকি গ্রহণ করতে যেমন দ্বিধাবোধ করে না তেমনি রোমাঞ্চ অণুসন্ধানকারীও হয়ে থাকে ।

22. আইজেঙ্ক Neuroticism vs. Emotional Stability মাত্রা দ্বারা কিভাবে ব্যক্তিত্বকে বুঝিয়েছেন ?
উঃ আইজেঙ্ক তত্ব অনুযায়ী ব্যক্তির বাতিকগ্রস্ততা ও প্রাক্ষোভিক স্থিরতা ব্যক্তিত্বকে প্রভাবিত করে । বাতিকগ্রস্ত ব্যক্তি অনেক বেশি অস্থির এবং উদ্দীপনার প্রতি অত্যধিক ঝুঁকি সম্পন্ন আচরণের অধিকারী । এরা উদ্বেগপ্রবণ, অধিক সংবেদনশীল, ক্রোধ সম্পন্ন বা ভয়ার্ত আচরণের অধিকারী হতে পারে । অন্যদিকে প্রাক্ষোভিক স্থিরতা ব্যক্তিদের ব্যক্তিত্ব সহানুভূতিশীল স্নায়ুতন্ত্রের প্রতিক্রিয়া দ্বারা নির্ধারিত হয় । এরা সাধারনতঃ শান্ত, স্থিতিশীল ও সাবলম্বী চরিত্রের হয়ে থাকে । একটি স্থিতিশীল ব্যক্তির স্নায়ুতন্ত্র সাধারণত চাপযুক্ত পরিস্থিতিতে এবং নেতৃত্বাধীন অবস্থায় কম প্রতিক্রিয়াশীল হয় ও শান্ত থাকে ।

23. আইজেঙ্ক Psychoticism vs. Normality মাত্রা দ্বারা কিভাবে ব্যক্তিত্বকে বুঝিয়েছেন ?
উঃ আইজেঙ্ক তত্ব অনুযায়ী মানসিক রুগী ও স্বাভাবিক মানসিক অবস্থা সম্পন্ন ব্যক্তি পরস্পর বিপরীত ব্যক্তিত্বের অধিকারী । মানসিক রোগ সম্পন্ন ব্যক্তির মধ্যে সহানুভূতির অভাব, নিষ্ঠুরতা, একাকীত্বতা, আক্রমণাত্মক আচরণ ইত্যাদি ফুটে উঠে । এরুপ ব্যক্তি নিঃসঙ্গ, অসংবেদি, আত্মকেন্দ্রিক, আবেগপ্রবণ এবং সামাজিক রীতিনীতিতে অনিচ্ছুক প্রকৃতির হয়ে থাকে । মানসিক রুগী ও স্বাভাবিক মানসিক অবস্থা সম্পন্ন ব্যক্তিত্ব টেস্টোস্টেরনের স্তরের সাথে সম্পর্কিত । টেস্টোস্টেরন স্তর যতো বেশি, মনোবিকার ততো উচ্চতর স্তরের হয়ে থাকে এবং টেস্টোস্টেরন স্তর যতো কম সাধারণ স্থিতিশীল আচরণের বহিঃপ্রকাশ ততো অধিক হয় ।

24. The Sixteen Personality Factor Questionnaire (16PF) এর প্রবক্তা কে ?
উঃ ব্রিটিশ-আমেরিকান মনোবিদ Raymond Bernard Cattell 1965 সালে প্রকাশিত তার “Personality Factors in Objective Test Devices” নামক গ্রন্থে The Sixteen Personality Factor Questionnaire (16PF) প্রবর্তন করেন ।

25. Cattell ব্যক্তিত্বের কয় ধরনের বৈশিষ্ট্যের (Traits) উল্লেখ করেছেন ?
উঃ Cattell ব্যক্তিত্বের দুই ধরনের বৈশিষ্ট্যের (Traits) উল্লেখ করেছেন, যথাঃ i) The Surface Traits এবং ii) The Source Traits .



মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া টেট অনলাইন কোচিং

মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়ার তত্বাবধানে আরম্ভ হয়েছে সর্ব স্তরের টেট প্রস্তুতির অনলাইন কোচিং ॥

MGI পরিচালিত MGI TET ONLINE COACHING এর কোর্স গুলি হলঃ

⇓⇓

1. MGI PRIME TET ONLINE COACHING :-

নবম থেকে দ্বাদশ স্তরের সমাজ বিজ্ঞান বিষয়ের টেট পরীক্ষার উপযোগী এই কোর্সটি । এখানে থাকছে TEACHING-LEARNING, BENGALI, ENGLISH, EVALUATION, GEOGRAPHY HISTORY & ENVIRONMENT STUDIES এর PEDAGOGY থেকে 100+ টপিকের পুঙ্খানুপুঙ্খ আলোচনা এবং 30 টি মক টেস্ট ॥


2. MGI UPPER PRIMARY TET ONLINE COACHING :-

ষষ্ঠ থেকে অষ্টম (উচ্চ প্রাথমিক) স্তরের সমাজ বিজ্ঞান বিষয়ের টেট পরীক্ষার উপযোগী এই কোর্সটি । এখানে থাকছে CHILD PSYCHOLOGY, BENGALI, ENGLISH, SOCIAL STUDIES এর PEDAGOGY ও CONTENT থেকে 120+ টপিকের পুঙ্খানুপুঙ্খ আলোচনা এবং 20 টি মক টেস্ট ॥
&

3. MGI PRIMARY TET ONLINE COACHING :-

প্রথম থেকে পঞ্চম (প্রাথমিক) স্তরের টেট পরীক্ষার উপযোগী এই কোর্সটি । এখানে থাকছে CHILD PSYCHOLOGY, BENGALI, ENGLISH, MATHEMATICS & ENVIRONMENT STUDIES এর PEDAGOGY ও CONTENT থেকে 120+ টপিকের পুঙ্খানুপুঙ্খ আলোচনা এবং 20 টি মক টেস্ট ॥

আরো বিশদে জানতে যোগাযোগ করুনঃ 8640890159 নম্বরে ॥



26. Myers-Briggs Types Indicator এর প্রবক্তা কে ?
উঃ দুই আমেরিকান গবেষক তথা মাতা Katharine Cook Briggs এবং তার সুযোগ্য কন্যা Isabel Briggs Myers 1944 সালে প্রকাশিত তাদের “The Briggs Myers Type Indicator Handbook” নামক গ্রন্থে ব্যক্তিত্ব সংক্রান্ত Myers-Briggs Types Indicator এর প্রবর্তন করেন । প্রাথমিক অবস্থায় এটি The Briggs Myers Type Indicator নামে প্রকাশিত হলেও 1956 সালে “Myers–Briggs Type Indicator” নামে পুনঃ প্রকাশিত হয় । তাদের এই সূচক Carl Jung এর তত্বের ভিত্তিতে প্রবর্তন করেন ।

27. Myers-Briggs Types Indicator অনুযায়ী ব্যক্তিত্ব কয় প্রকার ?
উঃ প্রশ্নোত্তর দ্বারা গঠিত Myers-Briggs Types Indicator নামক বর্ণনামূলক তালিকায় 16 প্রকার ব্যক্তিত্বের আলোচনা করা হয়েছে । এই সূচক বিশ্বের সর্বাধিক ব্যবহৃত ব্যক্তিত্ব নির্ণায়ক সূচক ।

28. Myers-Briggs Types Indicator ব্যক্তিত্বের কয়টি বৈপরীত্য (Dichotomy) উল্লেখ করা হয়েছে ?
উঃ Myers-Briggs Types Indicator ব্যক্তিত্বের চারটি বৈপরীত্য উল্লেখ করা হয়েছে, এগুলি হলঃ i) Extravertion – Introvertion (E – I) Dichotomy :- , ii) Sensing – iNtuition (S – N) Dichotomy, iii) Thinking – Felling (T – F) Dichotomy এবং iv) Judging – Perception (J – P) Dichotomy ইত্যাদি ।

29. Myers-Briggs Types Indicator অনুযায়ী 16 প্রকার ব্যক্তিত্ব কিকি ?
উঃ Myers-Briggs Types Indicator অনুযায়ী 16 প্রকার ব্যক্তিত্ব হলঃ i) Extraverted Sensing Thinking Judging (ESTJ – Type), ii) Extraverted Sensing Feeling Judging (ESFJ – Type), iii) Introverted Sensing Thinking Judging (ISTJ – Type), iv) Introverted Sensing Feeling Judging (ISFJ – Type), v) Extraverted Sensing Thinking Perceiving (ESTP – Type), vi) Extraverted Sensing Feeling Perceiving (ESFP – Type), vii) Introverted Sensing Thinking Perceiving (ISTP – Type), viii) Introverted Sensing Feeling Perceiving (ISFP – Type), ix) Extraverted Intuitive Thinking Judging (ENTJ – Type), x) Extraverted Intuitive Thinking Perceiving (ENTP – Type), xi) Introverted Intuition Thinking Judging (INTJ – Type), xii) Introverted Intuition Thinking Perceiving (INTP – Type), xiii) Extraverted Intuitive Feeling Judging (ENFJ – Type), xiv) Extraverted Intuitive Feeling Perceiving (ENFP – Type), xv) Introverted Intuitive Feeling Judging (INFJ – Type) এবং xvi) Introverted Intuitive Feeling Perceiving (INFP – Type) ইত্যাদি ।

30. “Big Five” Personality Dimensions এর প্রবক্তা কে ?
উঃ ব্যক্তিত্ব বিশ্লেষণের “Big Five” Personality Dimensions টি কোন ব্যক্তিগত স্তর থেকে প্রবর্তন হয়নি । বিভিন্ন মনোবিজ্ঞানীর দ্বারা কৃত ব্যক্তিত্ব বিশ্লেষণের কার্যাবলী স্বাপেক্ষে এর উদ্ভব । এক্ষেত্রে Lewis Goldberg (1960), W.The Norman (1963), Paul Costa ও Robert R. McCrae (1989) প্রভৃতি মনোবিজ্ঞানীর নাম অগ্রগণ্য ।

31. “Big Five” Personality Dimensions এর পাঁচটি উপাদান কিকি ?
উঃ “Big Five” Personality Dimensions এর পাঁচটি উপাদান হলঃ i) Openness, ii) Conscientiousness, iii) Extroversion, iv) Agreeableness, এবং v) Neuroticism ইহা সংক্ষেপে OCEAN Model নামেও পরিচিত ।

32. Openness এর সাথে জড়িত সাধারণ প্রলক্ষণ বা বৈশিষ্ট্যগুলি কিকি ?
উঃ গবেষক Courtney E. Ackerman Openness এর সাথে জড়িত সাধারণ প্রলক্ষণ বা বৈশিষ্ট্য হিসাবে 12 টি প্রলক্ষণ উল্লেখ করেছেন, যথাঃ Imagination; Insightfulness; Varied interests; Originality; Daringness; Preference for variety; Cleverness; Creativity; Curiosity; Perceptiveness; Intellect; Complexity/depth ইত্যাদি ।

33. Conscientiousness এর সাথে জড়িত সাধারণ প্রলক্ষণ বা বৈশিষ্ট্যগুলি কিকি ?
উঃ গবেষক Courtney E. Ackerman Conscientiousness এর সাথে জড়িত সাধারণ প্রলক্ষণ বা বৈশিষ্ট্য হিসাবে 13 টি প্রলক্ষণ উল্লেখ করেছেন, যথাঃ Persistence; Ambition; Thoroughness; Self-discipline; Consistency; Predictability; Control; Reliability; Resourcefulness; Hard work; Energy; Perseverance; Planning.

34. Extroversion এর সাথে জড়িত সাধারণ প্রলক্ষণ বা বৈশিষ্ট্যগুলি কিকি ?
উঃ গবেষক Courtney E. Ackerman Extroversion এর সাথে জড়িত সাধারণ প্রলক্ষণ বা বৈশিষ্ট্য হিসাবে 11 টি প্রলক্ষণ উল্লেখ করেছেন, যথাঃ Sociableness; Assertiveness; Merriness; Outgoing nature; Energy; Talkativeness; Ability to be articulate; Fun-loving nature; Tendency for affection; Friendliness; Social confidence ইত্যাদি ।

35. Agreeableness এর সাথে জড়িত সাধারণ প্রলক্ষণ বা বৈশিষ্ট্যগুলি কিকি ?
উঃ গবেষক Courtney E. Ackerman Agreeableness এর সাথে জড়িত সাধারণ প্রলক্ষণ বা বৈশিষ্ট্য হিসাবে 16 টি প্রলক্ষণ উল্লেখ করেছেন, যথাঃ Altruism; Trust; Modesty; Humbleness; Patience; Moderation; Tact; Politeness; Kindness; Loyalty; Unselfishness; Helpfulness; Sensitivity; Amiability; Cheerfulness; Consideration ইত্যাদি ।

36. Neuroticism এর সাথে জড়িত সাধারণ প্রলক্ষণ বা বৈশিষ্ট্যগুলি কিকি ?
উঃ গবেষক Courtney E. Ackerman Neuroticism এর সাথে জড়িত সাধারণ প্রলক্ষণ বা বৈশিষ্ট্য হিসাবে 15 টি প্রলক্ষণ উল্লেখ করেছেন, যথাঃ Awkwardness; Pessimism; Moodiness; Jealousy; Testiness; Fear; Nervousness; Anxiety; Timidness; Wariness; Self-criticism; Lack of confidence; Insecurity; Instability; Oversensitivity ইত্যাদি ।

37. ব্যক্তিত্ব বিকাশের Psychoanalytic Theory বলতে কি বোঝায় ?
উঃ ব্যক্তিত্ব বিকাশের যেসমস্ত তত্ত্ব ব্যক্তিত্বের বিভিন্ন উপাদানগুলির মিথস্ক্রিয়া হিসাবে মানব আচরণের ব্যাখ্যা দেয় সেগুলিকে Psychoanalytic Theory বলা হয় । জার্মান মনোবিদ Sigismund Schlomo Freud হলেন এই ধরনের ধারণার প্রবর্তক ।

38. Psychodynamic Theories of Personality এর প্রবক্তা কে ?
উঃ 1900 শতকের প্রথমার্ধে (1905-1915 এর মধ্যে) ফ্রয়েড Psychodynamic Theories of Personality প্রবর্তন করেন ।

39. ফ্রয়েডের Psychodynamic Theories of Personality এর মূল বক্তব্য কি ?
উঃ ফ্রয়েডের Theory of Psychosexual Development এর মূল বক্তব্য হল – একজন ব্যক্তির আচরণ ও উন্নয়ন সেই ব্যক্তির মনের সচেতন ও অজ্ঞান দিকের মধ্যে পারস্পরিক সম্পর্কের দ্বারা প্রভাবিত হয় । তার এই তত্ব Theory of Libidinal Development নামেও পরিচিত ।

40. ফ্রয়েডের Psychodynamic Theories of Personality অনুযায়ী ব্যক্তিত্ব বিকাশের কয়টি পর্যায় রয়েছে ?
উঃ ফ্রয়েডের Psychodynamic Theories of Personality অনুযায়ী ব্যক্তিত্ব বিকাশের পাঁচটি পর্যায় রয়েছে, যথাঃ i) Oral Stage (birth to 12-18 months) :- a) Oral sucking, b) Oral biting;
ii) Anal Stage – (12-18 months to 03 years) :- a) Anal Explosive, b) Anal Retentive;
iii) Phallic Stage (3 to 5 – 6 years)
iv) Latency Stage (5 – 6 years to adolescence) এবং
v) Genital Stage (Adolescence to adulthood) ইত্যাদি ।

41. ফ্রয়েডে ব্যক্তিত্বকে কয়টি কাঠামোতে শ্রেণীভুক্ত করেছেন ?
উঃ ফ্রয়েডে ব্যক্তিত্বকে কয় ভাবে উপস্থাপন করেন, যথাঃ i) মন এর সামগ্রিক দিক (Topographical aspects of mind) :- ফ্রয়েড তিনটি স্তরে এরুপ মনের গঠনকে বিভক্ত করেছেন, যথাঃ a) The Conscious, b) The Preconscious or The Subconscious এবং 3) The Unconscious এবং ii) মন এর গতিশীল দিক (Dynamic aspects of mind) :- এরুপ মনের গঠনকেও ফ্রয়েড তিনটি স্তরে বিভক্ত করেছেন, যথাঃ a) The Id, b) The Ego এবং c) The Superego ইত্যাদি ।

42. ব্যক্তিত্বের Stage Theory of Psychosocial Development এর প্রবক্তা কে ?
উঃ ফ্রয়েডের Psychodynamic Theories of Personality এর বিতর্কিত বিষয়গুলো উন্নয়ন করে আমেরিকান-জার্মান মনোবিদ Erik Homburger Erikson 1968 তে Stage Theory of Psychosocial Development প্রবর্তন করেন ।

43. Stage Theory of Psychosocial Development এ Erikson কয়টি পর্যায়ের উল্লেখ করেছেন ?
উঃ Stage Theory of Psychosocial Development এ Erikson আটটি পর্যায়ের উল্লেখ করেছেন, যথাঃ i) Trust vs. Mistrust পর্যায়, ii) Autonomy vs. Shame and Doubt পর্যায়, iii) Initiative vs. Guilt পর্যায়, iv) Industry vs. Inferiority পর্যায়, v) Identity vs. Confusion পর্যায়, vi) Intimacy vs. Isolation পর্যায়, vii) Generativity vs. Stagnation পর্যায় এবং viii) Integrity vs. Despair

44. ব্যক্তিত্ব সমন্ধীয় চাহিদা তত্ব (Theory of Neurotic Needs) এর প্রবক্তা কে ?
উঃ নব্য-ফ্রয়েডিয়ান জার্মান মনোবিজ্ঞানী Karen Horney 1942 সালে প্রকাশিত তার “Self-Analysis” নামক গ্রন্থে
ব্যক্তিত্ব সমন্ধীয় “চাহিদা তত্ব” উপস্থাপন করেন ।

45. স্নায়বিক চাহিদা তত্বে হর্নি কয়টি চাহিদার উল্লেখ করেছেন ?
উঃ স্নায়বিক চাহিদা তত্বে হর্নি তিনটি মুখ্য বিভাগে 10 টি স্নায়বিক চাহিদার কথা উল্লেখ করেছেন, মুখ্য বিভাগগুলি হলঃ i) Needs that move you towards others, ii) Needs that move you away from others এবং iii) Needs that move you against others এবং 10 টি স্নায়বিক চাহিদা হলঃ a) The Neurotic Need for Affection and Approval, b) The Neurotic Need for a Partner Who Will Take Over One’s Life, c) The Neurotic Need to Restrict One’s Life Within Narrow Borders, d) The Neurotic Need for Power, e) The Neurotic Need to Exploit Others, f) The Neurotic Need for Prestige, g) The Neurotic Need for Personal Admiration, h) The Neurotic Need for Personal Achievement, i) The Neurotic Need for Self-Sufficiency and Independence, j) The Neurotic Need for Perfection and Unassailability ইত্যাদি ।

46. ব্যক্তিত্ব বিকাশের Behavioral Theory বলতে কি বোঝায় ?
উঃ যে সমস্ত তত্ব ব্যক্তির আচরণ এবং পরিবেশের অন্তঃসম্পর্কের ভিত্তিতে ব্যক্তিত্ব বিকাশের দিক উপস্থাপন করে সেগুলিকে Behavioral Theory বলা হয় ।

47. ব্যক্তিত্ব সংক্রান্ত Behavioral Theory এর মূল বক্তব্য কি ?
উঃ Behavioral Theory এর মূল বক্তব্য হলঃ পূর্বাভাসযুক্ত আচরণগত প্রতিক্রিয়া (Conditioning) পরিবেশের সাথে আমাদের মিথস্ক্রিয়ার মাধ্যমে উৎপন্ন হয় যা আমাদের ব্যক্তিত্ব গঠনে গুরুত্বপূর্ণ । আচরণবাদী মনোবিদদের মতে ব্যক্তিত্ব হল ব্যক্তিগত আচরণ এবং পরিবেশের মিথস্ক্রিয়ার ফল ।

48. ব্যক্তিত্ব সংক্রান্ত প্রধান Behavioral Theory গুলি কিকি ?
উঃ ব্যক্তিত্ব সংক্রান্ত প্রধান Behavioral Theory গুলি হলঃ i) রাশিয়ান মনোবিদ Ivan Petrovich Pavlov এর Classical Conditioning (1897 এ কুকুরের উপর পরীক্ষার ফল) এবং ii) আমেরিকান মনোবিদ Burrhus Frederic Skinner এর Operant Conditioning বা Instrumental Conditioning (1938 সালে “The Behavior of Organisms: An Experimental Analysis” নামক গ্রন্থে প্রবর্তিত)

49. ব্যক্তিত্ব বিকাশের Humanist Theory বলতে কি বোঝায় ?
উঃ যে মনোবৈজ্ঞানিক তত্বের মাধ্যমে মানুষের অভ্যন্তরীণ উৎকর্ষতা এবং তার ভিত্তিতে সম্পাদিত উচ্চ স্তরের কার্যকারিতার নিরিখে ব্যক্তিত্ব গঠন সমন্ধে আলোচনা করা হয় সেগুলিকে ব্যক্তিত্ব বিকাশের Humanist Theory বলা হয় । মানবতাবাদী পন্থা অবলম্বনকারী মনোবৈজ্ঞানিকগন ব্যক্তিত্ব সম্পর্কিত Psychodynamic এবং Behavioristic তত্বের বিরোধিতা করে 1962 সালে Humanist Theory এর প্রবর্তন করেন ।

50. মানবতাবাদী তত্ত্বের ধর্মীয় সংযোগগুলি?
আমেরিকা অব্রাহাম হ্যারল্ড ম্যাসলো 1943-এর প্রকাশিত “মানব প্রেরণার একটি তত্ত্ব” নামক লেখক প্রকাশিত “প্রয়োজনের হায়ারার্কি” তত্ত্ব এবং খ) আমেরিকান সমাজতত্ত্ব কার্ল মুক্তিপণ রজার্সের 1951 প্রকাশিত প্রকাশিত “ক্লায়েন্ট-কেন্দ্রিক থেরাপি: এর বর্তমান অনুশীলন, ফলস্বরূপ এবং তত্ত্ব” প্রকাশিত “ব্যক্তি-কেন্দ্রিক তত্ত্ব” ইত্যাদি।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Specify Facebook App ID and Secret in Super Socializer > Social Login section in admin panel for Facebook Login to work

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!