The Rise of History in The Education System ॥ শিক্ষা ব্যবস্থায় ইতিহাসের উত্থান

শিক্ষা ব্যবস্থায় ইতিহাসের উত্থান

♥♥♥♥♥♥

1. ইতিহাস (History) বলতে কি বোঝায় ?
উঃ ইতিহাস বলতে বোঝায় অতীতে ঘটে যাওয়া মানব কেন্দ্রিক ঘটনার কার্যকরী বর্ণনা । মূলতঃ মানব সমাজ ও সভ্যতার ধারাবাহিক ক্রমোন্নতির প্রকৃত সত্য অনুসন্ধানের নথি হল ইতিহাস । ব্রিটিশ ইতিহাসবিদ Edward Hallett Carr এর মতে ‘ইতিহাস হল ঐতিহাসিক তথ্যের অবিচ্ছেদ্য ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়া, বর্তমান ও অতীতের অন্তহীন সংলাপ ।’
সুইডিশ ইতিহাসবিদ Jacob Christopher Burckhardt ইতিহাস প্রসঙ্গে তার “Judgements on History and Historians” (1958) গ্রন্থে বলেছেন – “History is the record of what one age finds worthy of note in another.”
Henry Johnson: “History, in its broadest sense, is everything that ever happened.”
আইরিশ ইতিহাসবিদ Vincent Arthur Smith এর মতে “The value and interest of history depend largely on the degree in which the present is illuminated by the past.”
NCERT ইতিহাসের সংজ্ঞা প্রসঙ্গে উল্লেখ করে – “History is the scientific study of past happenings in all their aspects, in the life of a social group, in the light of present happenings.”

2. “History” শব্দের অর্থ কি ?
উঃ “History” শব্দটি প্রাচীন গ্রীক শব্দ “Historía” (ἱστορία) থেকে উদ্ভুত হয়েছে, যার আক্ষরিক অর্থ হল ‘Inquiry’, ‘Knowledge from inquiry’, বা ‘judge’ অর্থাৎ ‘জ্ঞানের অনুসন্ধান বা খোঁজ’ । গ্রীক দার্শনিক Aristotle তাঁর “History of Animals” নামক গ্রন্থে এভাবেই প্রথম “History” শব্দটির ব্যবহার করেন । অপরদিকে হেরোডোটাস “ঘটনার অনুসন্ধান” অর্থে Historia/History শব্দটি ব্যবহার করেন ।

3. “ইতিহাস” শব্দের অর্থ কি ?
উঃ বাংলা ইতিহাস শব্দটি এসেছে সংস্কৃত ‘ইতিহ’ শব্দ থেকে – যার মৌলিক অর্থ “ঐতিহ্য” এবং ব্যুৎপত্তিগত অর্থ হল “বারবার চলে আসছে এমন”–। এবং “আস্” শব্দের অর্থ হল “যাতে আছে বা পাওয়া যায়” ।অর্থাৎ ইতিহাস বলতে বোঝায় ‘বারবার চলে আসছে এমন ঘটনার বর্ণনা যেখানে বর্ণিত হয়েছে’ বা ‘অতীত ঐতিহ্যপূর্ণ ঘটনাবলীর বর্ণনা যেখানে বিবৃত হয়েছে’ সেই উৎস কে । ভারতীয় প্রেক্ষাপটে ইংরাজি শব্দ “History” এর প্রতিশব্দ হিসাবে “ইতিহাস” শব্দটি ব্যবহৃত হয় । উনিশ শতকে জার্মান ঐতিহাসিক Leopold von Ranke বলেন, প্রকৃতপক্ষে যা ঘটেছিল তার অনুসন্ধান ও বিবরণই ইতিহাস ।

4. “ইতিহাস হল ভাঙা টুকরো দিয়ে জোড়া এক বিশাল ধাঁধাঁ, যার অনেক টুকরো হারিয়ে গেছে ।” ইতিহাস প্রসঙ্গে উক্তিটি কার ?
উঃ ব্রিটিশ ইতিহাসবিদ Edward Hallett Carr 1961 সালে প্রকাশিত তাঁর “What Is History?” নামক গ্রন্থে ইতিহাস প্রসঙ্গে এই উক্তিটি করেছেন ।

5. কোন ঘটনা ইতিহাসের সূত্রপাত ঘটায় ?
উঃ প্রত্নতাত্ত্বিকগণ দ্বারা মিশরে খ্রিস্টপূর্ব 3200 সালের পূর্বে লেখা লিখিত নথি আবিষ্কার করার ঘটনা ইতিহাসের সূত্রপাত ঘটায় বলে ঐতিহাসিকগন মনে করেন ।

6. প্রথম কে ইতিহাস বিষয়টির সূচনা করেন ?
উঃ প্রাচীন গ্রীক দর্শনীয় Herodotus (484 BC–425 BC) প্রথম ইতিহাস বিষয়টির সূচনা করেন বলে ইতিহাসবিদ অভিমত পোষণ করেন । তিনি তাঁর লেখা “The Histories” নামক গ্রন্থে The Greco-Persian Wars এর বিস্তৃত বর্ণনার মধ্য দিয়ে ঐতিহাসিক বর্ণনার সূচনা করেন ।

7. ইতিহাসে কার্যকারন পদ্ধতির সূচনা কে করেন ?
উঃ প্রাচীন এথেন্স এর ইতিহাসবিদ Thucydides তাঁর সমসাময়িককালে ঘটা Peloponnesian War (431–404 BC) এর বিজ্ঞানভিত্তিক বর্ণনা দ্বারা লেখা “The History of the Peloponnesian War” নামক গ্রন্থের মাধ্যমে ইতিহাসে কার্যকারন পদ্ধতির সূচনা করেন । এ জন্য তাঁকে Father of “Scientific History” বলা হয় ।

8. কোন সময় থেকে ইতিহাস বিষয়টি শিক্ষা ব্যবস্থায় অন্তর্ভুক্ত হয় ?
উঃ ইতালিয়ান ইতিহাসবিদ Arnaldo Dante Momigliano 1987 সালে প্রকাশিত তার “Ottavo Contributo Alla Storia Degli Studi Classici E Del Mondo Antico” (The Introduction of the Teaching of History as an Academic Subject and Its Implications) নামক গ্রন্থে উল্লেখ করেন যে খ্রিস্টপূর্ব পঞ্চম শতকে ইতিহাসের সূত্রপাত হলেও পঞ্চদশ শতকের শেষ পর্যন্ত ইতিহাস বিষয়টি শিক্ষা ব্যবস্থায় অন্তর্ভুক্ত হয়নি । 1599 সালে Jesuits দের দ্বারা ইতিহাস শিক্ষার ক্ষেত্র তৈরি হয় এবং 1600 থেকে গ্রিস ও রোমে উচ্চ শিক্ষায় ইতিহাস বিষয়টি শিক্ষা ব্যবস্থায় অন্তর্ভুক্ত হয় ।

9. ইতিহাসের প্রথম পাঠ্যপুস্তক কোনটি ?
উঃ 1593 সালে Antonio Possevino দ্বারা প্রকাশিত “Bibliotheca Selecta” নামক গ্রন্থটি হল ইতিহাসের প্রথম পাঠ্যপুস্তক । 1603 সালে এই বইটি পূর্ণাঙ্গ রুপে প্রকাশিত হয়ে গ্রিস ও রোমে উচ্চ শিক্ষায় অন্তর্ভুক্ত হয় ।

10. শিক্ষা ব্যবস্থার নিম্ন স্তরে কোন সময় ইতিহাস বিষয়টি পাঠ্য বিষয় হিসাবে অন্তর্ভুক্ত হয় ?
উঃ 1735 সালে অস্ট্রিয়া প্রদেশে প্রথম শিক্ষা ব্যবস্থার নিম্ন স্তরে ইতিহাস বিষয়টি পাঠ্য বিষয় হিসাবে অন্তর্ভুক্ত হয় । এর পর Maria Theresa নামক জনৈক পুর্তগীজ 1746 সালে ভিয়েনাতে ইতিহাস শিক্ষা আরম্ভ করেন ।

11. কোন সময় থেকে ইতালিতে ইতিহাস চর্চা আরম্ভ হয় ?
উঃ ইতালিতে 1741 সাল থেকে ইতালির Collegio Romano নামক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রথম ইতিহাস চর্চা আরম্ভ হয় ।

12. স্নাতক স্তরে প্রথম কোন University ইতিহাস বিষয়ের পঠন-পাঠন আরম্ভ করে ?
উঃ Oxford University 1872 সালে প্রথম ইতিহাস বিষয়ের পঠন-পাঠন আরম্ভ করে এবং তার এক বছরের মধ্যেই 1873 Cambridge University তে স্নাতক স্তরে ইতিহাসের পঠনপাঠন আরম্ভ হয় ।

13. সাধারণভাবে ইতিহাসের বিবর্তন পর্যায়কে কয়টি ভাগে ভাগ করা যায় ?
উঃ সাধারণভাবে ইতিহাসের বিবর্তন পর্যায়কে তিনটি ভাগে ভাগ করা যায়, যথাঃ i) প্রাচীন ইতিহাস – Ancient History (3600 B.C.-500 A.D.), ii) মধ্য যুগ – The Middle Ages (500-1500 A.D.) এবং iii) আধুনিক যুগ – The Modern Age (1500-present) ।

14. কোন সময়কাল থেকে প্রাচীন ইতিহাসের (Ancient History) সূচনা হয় ?
উঃ মানবীয় ইতিহাসে প্রায় 6000 BC থেকে প্রত্নতাত্ত্বিকগন মানবীয় কর্মকাণ্ডের প্রমান পেলেও ব্রোঞ্জ যুগের প্রারম্ভ (3600 BC) থেকে প্রাচীন ইতিহাসের সূচনাকাল ধরা হয় । প্রাচীন ইতিহাসের অন্তিমকাল হিসাবে ধরা হয় 500 A.D. সময়কালকে ।

15. প্রাচীন ইতিহাস পর্যায়ের দুইটি গুরুত্বপূর্ণ সময় কিকি ?
উঃ প্রাচীন ইতিহাস পর্যায়ের দুইটি গুরুত্বপূর্ণ সময় হলঃ i) ব্রোঞ্জ যুগ (The Bronze Age), ii) লৌহ যুগ (The Iron Age) ।

16. কোন সময়কাল থেকে ইতিহাসের The Middle Ages সূচনা হয় ?
উঃ 476 খ্রিস্টাব্দে Roman Empire এর পতনের পর 500 খ্রিস্টাব্দ থেকে ইতিহাসের মধ্য যুগের সূচনা হয় । ইতিহাসের এই সময়কাল Medieval Times এবং Dark Ages ইত্যাদি নামেও পরিচিত । ইতিহাসে মধ্য যুগের সময়সীমা প্রায় 1000 বছর, এবং এর অন্তিম সময়সীমা 1500 খ্রিস্টাব্দ ।

17. ইতিহাসের কোন সময়কে অন্ধকার যুগ (Dark Ages) হিসাবে চিহ্নিত করা হয় ?
উঃ রোমান সভ্যতার পতনের পর থেকে 500 বছর সময়কাল কে ইতিহাসের অন্ধকারযুগ বলা হয় । অর্থাৎ 500-1000 খ্রিস্টাব্দ সময় ইতিহাসের অন্ধকার যুগ । এই সময়ে রোমে সংরক্ষিত বিভিন্ন ঐতিহাসিক, সাংস্কৃতিক, প্রযুক্তিবিদ্যা ইত্যাদির নথি ধংস হয় ফলে ইতিহাসের প্রগতি সমন্ধে তথ্য হারিয়ে যাওয়ায় এই সময়কে অন্ধকারযুগ বলা হয় ।

 





মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়া টেট অনলাইন কোচিং

মিশন জিওগ্রাফি ইন্ডিয়ার তত্বাবধানে আরম্ভ হয়েছে সর্ব স্তরের টেট প্রস্তুতির অনলাইন কোচিং ॥

MGI পরিচালিত MGI TET ONLINE COACHING এর কোর্স গুলি হলঃ

⇓⇓

1. MGI PRIME TET ONLINE COACHING :-

নবম থেকে দ্বাদশ স্তরের সমাজ বিজ্ঞান বিষয়ের টেট পরীক্ষার উপযোগী এই কোর্সটি । এখানে থাকছে TEACHING-LEARNING, BENGALI, ENGLISH, EVALUATION, GEOGRAPHY HISTORY & ENVIRONMENT STUDIES এর PEDAGOGY থেকে 100+ টপিকের পুঙ্খানুপুঙ্খ আলোচনা এবং 30 টি মক টেস্ট ॥


2. MGI UPPER PRIMARY TET ONLINE COACHING :-

ষষ্ঠ থেকে অষ্টম (উচ্চ প্রাথমিক) স্তরের সমাজ বিজ্ঞান বিষয়ের টেট পরীক্ষার উপযোগী এই কোর্সটি । এখানে থাকছে CHILD PSYCHOLOGY, BENGALI, ENGLISH, SOCIAL STUDIES এর PEDAGOGY ও CONTENT থেকে 120+ টপিকের পুঙ্খানুপুঙ্খ আলোচনা এবং 20 টি মক টেস্ট ॥


&


3. MGI PRIMARY TET ONLINE COACHING :-

প্রথম থেকে পঞ্চম (প্রাথমিক) স্তরের টেট পরীক্ষার উপযোগী এই কোর্সটি । এখানে থাকছে CHILD PSYCHOLOGY, BENGALI, ENGLISH, MATHEMATICS & ENVIRONMENT STUDIES এর PEDAGOGY ও CONTENT থেকে 120+ টপিকের পুঙ্খানুপুঙ্খ আলোচনা এবং 20 টি মক টেস্ট ॥

আরো বিশদে জানতে যোগাযোগ করুনঃ 8640890159 নম্বরে ॥





 

18. কোন সময়কাল থেকে আধুনিক ইতিহাসের (Modern History) সূচনা হয় ?
উঃ বিশ্ব ইতিহাসে ইউরোপের পুনর্গঠনের সময় কাল বা 1500 খ্রিস্টাব্দ থেকে আধুনিক ইতিহাসের সূচনা হয় যা বর্তমান সময়ের মধ্য দিয়ে অগ্রসর হয়ে চলেছে ।

19. আধুনিক ইতিহাস (Modern History) কে কয়টি ভাগে ভাগ করা যায় ?
উঃ আধুনিক ইতিহাস কে তিন ভাগে ভাগ করা যায়, যথাঃ i) প্রারম্ভিক আধুনিক সময় – Early Modern Period (1500-1750), ii) মধ্য-আধুনিক সময় – Mid-Modern Period (1750-1914) এবং iii) সমসাময়িক সময় – Contemporary Period (1914-Present) ।

20. বিশ্ব ইতিহাসের বিবর্তন পর্যায়কে কয়টি ভাগে ভাগ করা যায় ?
উঃ বিশ্ব ইতিহাসের বিবর্তন পর্যায়কে ছয়টি ভাগে ভাগ করা যায়, যথাঃ i) Period 1 – Technological and Environmental Transformations,
ii) Period 2 – Organization and Reorganization of Human Societies,
iii) Period 3 – Regional and Transregional Interactions,
iv) Period 4 – Global Interactions,
v) Period 5 – Industrialization and Global Integration এবং
vi) Period 6 – Accelerated Global Change and Realignments, from 1900 to the present.

21. বিশ্ব ইতিহাসের বিবর্তনে Technological and Environmental Transformations পর্যায়ের গুরুত্ব কি ?
উঃ বিশ্ব ইতিহাসের বিবর্তনে Technological and Environmental Transformations পর্যায়ের সময়কাল হিসাবে ধরা হয় 8000 B.C. থেকে 600 B.C পর্যন্ত সময়কে । এই সময়ে মানবজাতির প্রাথমিক ইতিহাস সম্পর্কিত কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ থিমের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে । এই সময়কালে প্যালিওলিথিক পিরিয়ড চলাকালীন সময়ে, বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলে মানুষ স্থানান্তরিত হয়েছিল যাকে ‘the peopling of the Earth.’ বলা হয় । প্যালিওলিথিক পিরিয়ডের সময় থেকে আদিম মানুষ খাদ্যের শিকারের জন্য পাথর নির্মিত হাতিয়ার ব্যবহার করতে আরম্ভ করে । এই সময়ের ইতিহাস প্রত্নতাত্ত্বিক বিভিন্ন উপাদান থেকে জানা যায় ।

22. ‘Big Geography’ শব্দবন্ধ টি ইতিহাসের কোন সময়ের সাথে যুক্ত ?
উঃ বিশ্ব ইতিহাসের বিবর্তনে Technological and Environmental Transformations পর্যায়ের সাথে যুক্ত একটি গুরুত্বপূর্ণ শব্দবন্ধ হল ‘Big Geography’ । বিশ্ব ইতিহাসের বিশ্বব্যাপী দৃষ্টিভঙ্গি বোঝাতে ‘Big Geography’ শব্দবন্ধ ব্যবহৃত হয়, কারন এই সময়ে বিশ্বব্যাপি মানুষ স্থানান্তরিত হতে থাকে এবং বিভিন্ন গ্রুপের প্রাচীন মানুষের অন্তঃসম্পর্ক স্থাপনের মাধ্যমে প্রাচীন সভ্যতার সূচনা আরম্ভ হয় । গড়ে ওঠে প্রাচীন বসতি । এই সময়ে Neolithic Revolution এর সূচনা হয়, মানব উন্নয়ন হিসাবে শিকার, খাদ্য শষ্য উৎপাদন, পশুখামার ইত্যাদি বিষয়গুলিরও সূচনা হয় ।

23. বিশ্ব ইতিহাসের বিবর্তনে Organization and Reorganization of Human Societies পর্যায়ের গুরুত্ব কি ?
উঃ বিশ্ব ইতিহাসের বিবর্তনে Organization and Reorganization of Human Societies পর্যায়ের সময়কাল হিসাবে ধরা হয় 600 B.C. থেকে 600 A.D. পর্যন্ত সময়কে । এই সময়ে গ্রিক ও রোমান সাম্রাজ্যের মতো শক্তিশালী প্রারম্ভিক সভ্যতার উত্থান ঘটে । এই সময়ে ধর্মীয়, রাজনৈতিক এবং জাতিগত পার্থক্যগুলি সৃষ্টি হয় এবং মানুষ বিভিন্ন গোষ্ঠীতে বিভক্ত হয়ে পড়ে । সভ্যতা উন্নত থেকে উন্নততর হতে থাকে এবং একটি শক্তিশালী সত্তা হিসাবে রাষ্ট্র যন্ত্রের আবির্ভাব ঘটে । ইউরোপে Transregional trade এর সূচনা হয়, উদাহরণ হিসাবে Silk Road এর মাধ্যমে ইউরোপ ও এশিয়ার মধ্যে বাণিজ্য ব্যবস্থার কথা বলা যায় ।

24. বিশ্ব ইতিহাসের বিবর্তনে Regional and Transregional Interactions পর্যায়ের গুরুত্ব কি ?
উঃ বিশ্ব ইতিহাসের বিবর্তনে Regional and Transregional Interactions পর্যায়ে হিসাবে ধরা হয় 600 থেকে 1450 A.D. পর্যন্ত সময়কে । এই সময়ে বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলের মধ্যে বাণিজ্য ও যোগাযোগ অব্যাহতভাবে অগ্রগতি লাভ করে । সাংস্কৃতিক মিথস্ক্রিয়া এবং প্রযুক্তির সংমিশ্রণের ফলে সভ্যতা ক্রমশঃ আধুনিকতার পথে চালিত হয় । বাণিজ্যের প্রসারে রাষ্ট্র ব্যবস্থা কেন্দ্রীয় ভূমিকা পালন করে । বিভিন্ন ধর্ম কেন্দ্রিক সভ্যতার সূচনা হয় এবং ইউরেশিয়া ও আফ্রিকা জুড়ে শিল্প ও কৃষির প্রসার ঘটে ।

25. বিশ্ব ইতিহাসের বিবর্তনে Global Interactions পর্যায়ের গুরুত্ব কি ?
উঃ বিশ্ব ইতিহাসের বিবর্তনে Global Interactions পর্যায়ের সময়কাল হল 1450 থেকে 1750 সালের অন্তর্বতী সময় । এই সময়ে পূর্ব ও পশ্চিম গোলার্ধের মধ্যে অন্তঃসম্পর্ক গড়ে উঠতে থাকে এবং ভারত মহাসাগর, ভূমধ্যসাগর, সাহারা ও ইউরেশিয়ার স্থলভাগের মাধ্যমে বিশ্ব জুড়ে বাণিজ্য ও অর্থনীতির প্রসার ঘটে । বাণিজ্যিক প্রতিযোগিতা আরম্ভ হয় ও ঔপনিবেশিকতার সূচনা ঘটে ।

26. বিশ্ব ইতিহাসের বিবর্তনে Industrialization and Global Integration পর্যায়ের গুরুত্ব কি ?
উঃ বিশ্ব ইতিহাসের বিবর্তনে Industrialization and Global Integration পর্যায়ের সময়কাল হিসাবে 1750 থেকে 1900 পর্যন্ত সময়কে ধরা হয় । এই সময়ে শিল্পায়ন প্রক্রিয়া দ্রুততর হয় এবং বৈশ্বিক অর্থনীতি, সামাজিক সম্পর্ক এবং সংস্কৃতিতে সুদূরপ্রসারী প্রভাব পড়ে । পণ্যের উৎপাদন এবং ভোগের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তিত হয় । এই সময়ে Nationalism, Revolution and Reform এর গুরুত্ব সর্বাধিক হয় । সাম্রাজ্যবাদ এবং বৈশ্বিক পুঁজিবাদী অর্থনীতির উত্থানের ফলস্বরূপ এই সময়ে অভিবাসনের ধরণগুলি নাটকীয়ভাবে পরিবর্তিত হতে থাকে এবং অভিবাসীদের সংখ্যা উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পেতে থাকে ।

27. বিশ্ব ইতিহাসের বিবর্তনে Accelerated Global Change and Realignments পর্যায়ের গুরুত্ব কি ?
উঃ বিশ্ব ইতিহাসের বিবর্তনে Accelerated Global Change and Realignments পর্যায়ের সময়কাল হিসাবে 1900 থেকে সমসাময়িক কালকে ধরা হয় । এই সময়ে রাষ্ট্র ব্যবস্থা ও মানুষ বিশ্বজুড়ে বিদ্যমান রাজনৈতিক ও সামাজিক অবস্থাকে বিভিন্ন উপায়ে চ্যালেঞ্জ জানায় ফলে বিশ্বব্যাপী নজিরবিহীন সংঘাতের পরিস্থিতি তৈরি হয় । ঔপনিবেশিতার অবসান ঘটে, বিভিন্ন স্বাধীন রাষ্ট্রের স্থাপনা হয় । অভ্যন্তরীণ অর্থনীতিতে রাষ্ট্রের ভূমিকা প্রধান্য পায় এবং বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন আর্থিক, সামাজিক, রাজনৈতিক সংস্থার অভ্যুত্থান ঘটতে থাকে । international organizations, Free-market Economics, Global Economy, Global Peace ইত্যাদি ধারণার উদ্ভব ঘটে ।

28. প্রাচীন ইতিহাসের কয়েকজন প্রথম সারির ঐতিহাসিকের নাম উল্লেখ করুন ।
উঃ প্রাচীন ইতিহাসের কয়েকজন প্রথম সারির ঐতিহাসিক হলেনঃ i) ইতিহাসের জনক তথা “The Histories” এর লেখক Herodotus । ii) বৈজ্ঞানিক ইতিহাসের জনক তথা “History of the Peloponnesian War” গ্রন্থের লেখক Thucydides । iii) রোমান ইতিহাসের অন্যতম স্থপতি রোমান ঐতিহাসিক তথা “Ab Urbe Condita” (”From the Founding of the City”) গ্রন্থের লেখক Titus Livius (Livy নামে জনপ্রিয়) । iv) রোমান ঐতিহাসিক তথা “The Annals” (“Ab excessu divi Augusti”) এবং “The Histories” (“Historiae”) গ্রন্থের জন্য জনপ্রিয় ঐতিহাসিক Publius Cornelius Tacitus, v) চীনা ইতিহাসের অন্যতম রূপকার তথা Chinese Herodotus নামে জনপ্রিয় Han dynasty সমকালীন ইতিহাসবিদ Sima Qian যিনি “Shiji (Historical Records)” নামক গ্রন্থের মাধ্যমে বিশ্ব ইতিহাস আলোচনা করেন ।

29. ইতিহাসের মধ্য যুগের কয়েকজন প্রথম সারির ঐতিহাসিকের নাম উল্লেখ করুন ।
উঃ ইতিহাসের মধ্য যুগের কয়েকজন প্রথম সারির ঐতিহাসিক হলেনঃ i) “The Father of English History” তথা “Ecclesiastical History of the English People” (731) গ্রন্থের লেখক ব্রিটিশ ঐতিহাসিক Saint Bede । ii) গ্রীক ঐতিহাসিক তথা “The Alexiad” গ্রন্থের লেখক Anna Komnene । iii) ব্রিটিশ ঐতিহাসিক তথা “the Father of Historical Criticism” ও “History of English Affairs” এর লেখক William Parvus (Willelmus de Novoburgo) । iv) ভারতীয় ঐতিহাসিক তথা “Kanhadade Prabandha” (1455) গ্রন্থের লেখক Padmanabha । v) “Father of the modern disciplines of historiography” (আধুনিক ইতিহাস চর্চার জনক) তথা “The Muqaddimah” বা “Prolegomena” (“Introduction”) গ্রন্থের লেখক Ibn Khaldun । vi) ভারতীয় কাশ্মিরি পণ্ডিত তথা “Rajatarangini” (“River of Kings” – 1148-49) গ্রন্থের লেখক Kalhana ইত্যাদি ।

30. ইতিহাস চর্চার বিজ্ঞানসম্মত পথ উন্মোচিত হয় কোন সময় ?
উঃ ঊনবিংশ শতকে আধুনিক ইতিহাস চর্চার চূড়ান্ত প্রকাশ ঘটে এবং সমসাময়িক ঐতিহাসিকদের মাধ্যমে ইতিহাস চর্চার বিজ্ঞানসম্মত পথ উন্মোচিত হয় ।

31. ইতিহাসের আধুনিক যুগের কয়েকজন প্রথম সারির ঐতিহাসিকের নাম উল্লেখ করুন ।
উঃ ইতিহাসের আধুনিক যুগের কয়েকজন প্রথম সারির ঐতিহাসিক হলেনঃ i) “Founder of Modern Source-Based History” তথা জার্মান ইতিহাসবিদ Leopold von Ranke । ii) ব্রিটিশ ঐতিহাসিক তথা “The French Revolution: A History”- 3 vols (1837) এবং “The History of Friedrich II of Prussia, Called Frederick the Great” – 6 vols (1858–65) গ্রন্থ দ্বয়ের লেখক Thomas Carlyle । iii) আমেরিকান ঐতিহাসিক তথা First American Scientific Historian ও “The History of the Reign of Ferdinand and Isabella the Catholic” (1837), “The History of the Conquest of Mexico” (1843), “A History of the Conquest of Peru” (1847) এবং “The Unfinished History of the Reign of Phillip II” (1856–1858) ইত্যাদি গ্রন্থের লেখক William Hickling Prescott । iv) আমেরিকান ঐতিহাসিক তথা “European History” ও বিশ্ববিদ্যালয় স্তরের অনেক পাঠ্য বই এর লেখক William Leonard Langer ইত্যাদি ।

32. কোন সময় থেকে ইতিহাস বিষয়টি সমাজবিজ্ঞানের অন্তর্ভুক্ত হয় ?
উঃ ঊনবিংশ শতকের প্রথম দশক পর্যন্ত ভূগোলের মতো ইতিহাসও একক বিষয় হিসাবে বিবেচিত হত । এদের জন্য কোন সাধারণ ক্ষেত্র ছিল না । ঊনবিংশ শতকের শেষের দিকে অর্থনীতি বিষয়টি পাঠক্রমে আলাদা স্থান করে নিলে বিংশ শতকের প্রারম্ভিক সময়ে সমাজবিজ্ঞান নামক বিষয়টি বিদ্যালয় কর্মসূচীতে অন্তর্ভুক্ত হয় । এর পর ধীরে ধীরে History, Geography, Civics, Sociology ইত্যাদি বিষয়গুলো সমাজবিজ্ঞানের অন্তর্ভুক্ত হয় ।

33. ইতিহাসের প্রাচীনতম জার্নালটির নাম কি ?
উঃ Danish Historical Society দ্বারা 1840 সালে প্রকাশিত “Historisk Tidsskrift” হল ইতিহাসের প্রাচীনতম জার্নাল । এর প্রথম এডিটর ছিলেন Danish Historical Society এর প্রতিষ্ঠাতা তথা ডেনিস ঐতিহাসিক Christian Molbech ।

34. কোন ইতিহাস জার্নালকে ইতিহাস জার্নালের পথ প্রদর্শক বলা হয় ?
উঃ জার্মান ঐতিহাসিক Heinrich von Sybel দ্বারা 1859 সালে জার্মান ভাষায় প্রকাশিত “Historische Zeitschrift” নামক জার্নাল টিকে ইতিহাস জার্নালের পথ প্রদর্শক বলা হয় । এটি ছিল বিশ্বের দ্বিতীয় প্রাচীনতম ইতিহাস জার্নাল । এই জার্নালের প্রভাবে প্রভাবিত হয়ে পরবর্তী সময়ে ফরাসি ঐতিহাসিক জার্নাল Revue historique (1876), ব্রিটিশ জার্নাল English Historical Review (1886) এবং আমেরিকান জার্নাল American Historical Review (1895) স্থাপিত হয় ।

35. কোন সময় ব্রিটেনে ব্যাপকভাবে ইতিহাস চর্চা আরম্ভ হয় ?
উঃ 1970 এর দশকে ব্রিটেনে ব্যাপকভাবে ইতিহাস চর্চা আরম্ভ হয়, এই সময় ব্রিটেনের 47 টি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক স্তরে ইতিহাস কোর্স আরম্ভ হয়, যার মধ্যে 41 টি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক স্তরে একক ভাবে ইতিহাস কোর্স আরম্ভ হয় ।

সমগ্র পোস্ট টি পাড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ 

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!